ফের সুখবর সরকারি কর্মীদের জন্য , DA – বেতন দুই বাড়ছে, পকেটে ঢুকবে মোটা টাকা- Govt Employees News

Rajjak Ali

Written by Rajjak Ali

Published on:

নয়াদিল্লী – সালটা ছিল ২০১৬ । সেই শেষ সেই বেশ ।  সেই বছরই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য নতুন করে পে কমিশন গঠন করে কেন্দ্রের মোদী সরকার । তারপর নয় নয় করে পার হয়ে গিয়েছে বেশ কয়েক টা বছর । বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা সপ্তম বেতন কমিশন অনুযায়ী ৪২ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা অর্থাৎ ডিএ পাচ্ছেন ।  নতুন বছর অর্থাৎ ২০২৩-এর শুরুতেই সরকারি কর্মীদের প্রতি সদয় হয়েছে কেন্দ্র সরকার । চলতি বছরের শুরুতেই তিন তিনটি সুখবর পেয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা । যেমন , প্রথমত  ডিএ (DA) অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতা যেমন বৃদ্ধি হয়েছে , তেমনই কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে  ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর (FITMENT FACTOR) অর্থাৎ এআইসিপিআই (AICPI) সুচক বৃদ্ধির জেরে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের বেতন ও বেড়েছে কয়েকগুন ।  তৃতীয়ত এ বছরের শুরুতেই বিগত ১৮ মাসের বকেয়া টাকা  নিজেদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি পেয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা । তবে বিগত বছর সেপ্টেম্বর মাসেই লাঘু হয়েছে সপ্তম বেতন কমিশন। ষষ্ঠ পে কমিশন অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা পেতেন ৩৮ শতাংশ ডিএ অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতা। সপ্তম পে কমিশন লাঘু হওয়ায় তাদের ডি এ অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতার পরিমাণ এক ধাক্কায় ৪ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৪২ শতাংশ। চলতি বছর জানুয়ারি থেকে কেন্দ্র সরকারের ৬৮ লক্ষ কর্মী এবং ৫২ লক্ষ পেনশন ভোগীরা এই বর্ধিত ডিএ -র সুবিধা পাচ্ছেন । Govt Employees News

ফের সুখবর সরকারি কর্মীদের জন্য , DA - বেতন দুই বাড়ছে, পকেটে ঢুকবে মোটা টাকা- Govt Employees News

কেন্দ্র সরকারি কর্মীরা অবশ্য বছরে দুবার বর্ধিত ডিএ -এর সুবিধা পেয়ে থাকেন। যেমন বছরের শুরুতে জানুয়ারিতে এবং বছরের মাঝামাঝি জুলাইতে । এ বছরও যে অন্যথা হবে না তার ইঙ্গিত মিলেছে দিন কয়েক আগেই । ইতিমধ্যেই সরকারি সুত্রে পাওয়া তথ্য অনুসারে , প্রতিবছরের মতো এবারও জুলাই মাসে ফের ডিএ বাড়তে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের । আবারও ৪ শতাংশ ডিএ বাড়তে পারে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের । ফলত এই ৪ শতাংশ বৃদ্ধির পর কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ডি এ – এর পরিমাণ গিয়ে দাঁড়াতে পারে ৪৬ শতাংশে । এক্ষেত্রে হিসাব অনুযায়ী একজন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীর  মূল বেতন যদি ২০ হাজার টাকা হয়, তাহলে এই ডিএ বৃদ্ধি হয়ে তিনি বাড়তি পাবেন ১০ হাজার টাকা । তাহলে ওই কর্মীর মোট মূল বেতন দাঁড়াবে ৩০ হাজার টাকায়। 

তবে এর সঙ্গে রয়েছে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের দেওয়া  সরকারি কর্মীদের এআইসিপিআই (AICPI ) সুচক। এবিষয়ে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের পেশ করা তথ্য অনুসারে চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে কমলেও এক মাসের মধ্যে অর্থাৎ মার্চ মাসেই ফের  বৃদ্ধি পেয়েছে AICPI ইনডেক্স বা সুচক । এই বর্ধিত ইনডেক্স বা সুচকের ভিত্তিতেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী এবং পেনশন ভোগীদের প্রতিবছর ডি এ নির্ধারিত হয় । ইতিমধ্যেই গত ২৮ এপ্রিল বিগত মার্চ মাসের AICPI ইনডেক্সের (All-India Consumer Price Index) অর্থাৎ সুচকের তথ্য প্রকাশ পেয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে এটি কমে গেলেও মার্চ এবং এপ্রিল মাসে এক ধাক্কায় অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে AICPI সুচক বা ইনডেক্স ।  

যার ফলে অনুমান করা হচ্ছে যে, আগামী ১ জুলাই থেকে মহার্ঘ ভাতা ৪ শতাংশ বাড়তে পারে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের । এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের দাবি ইতিমধ্যেই  এআইসিপিআই (AICPI)-এর সূচক ১৩১ পয়েন্ট পার করেছে । তুলনা করলে তা  ২.১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানানো হয়েছে । এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারি সংগঠনের  দাবি, বর্তমানে তাদের ন্যূনতম মজুরি সীমা ১৮ হাজার টাকা রাখা হয়েছে। এতে ইনক্রিমেন্ট ফিটমেন্ট ফ্যাক্টরকে অনেক বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। 

বর্তমানে, এই ফ্যাক্টরটি ২.৫৭ গুণ, যদিও সপ্তম বেতন কমিশনে এটি ৩.৬৮ গুণ পর্যন্ত রাখার সুপারিশ করা হয়েছে। এমনটা হলে কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি ১৮ হাজার টাকা থেকে বেড়ে ২৬ হাজার টাকা হবে। এবং এক্ষেত্রে যে সকল কর্মীদের বেসিক স্যালারি নুন্যতম তাদের ক্ষেত্রে ৭২০ টাকা এবং যাঁদের বেসিক স্যালারি সর্বোচ্চ তাদের ক্ষেত্রে ডি এ বাড়তে পারে ২২৭৬ টাকা । ফলে  বছরের মাঝামাঝি সময় অর্থাৎ জুলাইতে  কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের জন্য যে ফের সুখবর আসতে চলেছে তা আর বলাই বাহুল্য  ।

written by – Somnath Pal . 

Join Telegram Channel : Click Here

TAG – DA# GOVT #EMPLOYER#DEARNESS ALLOWENCE #INCREASE  #FITMENT FACTOR  #AICPI

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Rajjak Ali
Rajjak Ali

Rajjak Ali is an experienced content writer with over 5 years of expertise in crafting engaging and informative content. With a passion for writing, Rajjak has successfully delivered high-quality articles, blog posts, and website content for various niches. Rajjak's dedication to delivering captivating content has earned him a reputation for excellence in the field.