প্রচুর চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগ,মাধ্যমিক পাশে। নিজের গ্রামপঞ্চায়েতে নিয়োগ।






বঙ্গধারা প্রতিবেদন :- রাজ্যে বেকারত্ব কমাতে আরও এক কদম হাঁটল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। রাজ্যে চুক্তিরভিত্তিতে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ  করেছে।
পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অধীনে  কিন্তু অস্থায়ীভাবে  নিয়োগ করবে রাজ্যের গ্রামপঞ্চায়েতে বিভিন্ন কাজ সঙ্গে সামাজিক  নিরিক্ষার কাজ করতে দেওয়া  হবে ।

নীচে পদের সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া হলো 

পদের নাম :- গ্রামীণ সম্পদ কর্মী (VRP)

মোট শূন্যপদ :- 224 টি 

কাজের স্থান :- দঃ দিনাজপুরের বিভিন্ন ব্লকের গ্রামপঞ্চায়েতে। 


               *********    যোগ্যতা       ***********

1. মাধ্যমিক পাস বা তার সমতুল্য যোগ্যতা বা উচ্চ যোগ্যতা থাকলে
আবেদন করা যাবে।

2. আবেদনকারী বা তার পরিবারের যে কারো 100 দিনের কাজের সঙ্গে
যুক্ত থাকতে হবে বা জব কার্ড থাকলেও হবে।

3.আবেদনকারিকে অবশ্যয় সেই এলাকার  বাসিন্দা হতে হবে  যে শূন্যপদ
পুরন করা হবে । এর জন্য ভোটার কার্ড প্রমান হিসাবে লাগবে ।

4.যারা সনির্ভর গোষ্ঠি এবং এসসি ও  এসটি  থেকে তারাও আবেদন করতে পারবে।

আবেদনের প্রসেস : আবেদন  সম্পূর্ণ অফলাইনের মাধ্যমে হবে।
এর জন্য জেলার অফিসিয়াল  ওয়েবসাইট  থেকে আবেদনপত্রটি
ডাউনলোড করে তা  নিজের  ব্লকে জমা করতে  হবে ।

নিয়োগ প্রক্রিয়া :- প্রথমে মাধ্যমিকের নাম্বারের উপর  ভিত্তি  করে  মেরিট
  লিস্ট  হবে  এবং  তার পরে  লিখিত  পরীক্ষা ও ইন্টারভিউ  এর  মাধ্যমে  
নিয়োগ  করা  হবে। 

আবেদন চলবে 18 ফেব্রুয়ারি থেকে 4 মার্চ পর্যন্ত। 

বিস্তারিত  জানতে  টাইপ করুন  www.dakshindinajpur.gov.in\

***************************************************************************

নিজস্ব প্রতিবেদন :-পশ্চিমবঙ্গে  বিরাট নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশিমবঙ্গের একটি বেসরকারি সংস্থা থেকে । জানা গিয়েছে এই সংস্থায় মাধ্যমে কয়েক হাজার কর্মী নিয়োগ করবে
পশিমবঙ্গের ১৯ জেলায় এই নিয়োগ করা হবার বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে ।
এই পদগুলিতে আবেদন করতে অষ্টম পাস্ থেকে স্নাতক যে কোনো যোগ্যতা থাকলে আবেদন করা যাবে উক্ত পদ গুলিতে ।
Human Industrial(OPC) Pvt.Ltd. এই সংস্থার মাধ্যমে ৭২২৮ টি শূন্যপদ পূরণের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ  করেছে জানানো হয়েছে ।
বিজ্ঞপ্তিতে তিন ধরনের পদের কথা উল্লেখ রয়েছে 1.District managing operator (80) 2. Block managing operator (680) 3. panchayat selling operator (6478)
যে যে জেলায় নিযোগ করা হবে তার নাম হল -১। পুরুলিয়া ২। মালদা ৩। জলপাইগুড়ি ৪। হুগলী ৫। দক্ষিণ দিনাজপুর ৬। কোচবিহার ৭। পূর্ব বর্ধমান ৮। বাঁকুড়া ৯। মুর্শিদাবাদ ১০। নাদিয়া গা। উত্তর ২৪ পরগনা ১২ । পশ্চিম মেদিনীপুর ১৩। দক্ষিণ ২৪ পরগনা ১৪ । উত্তর দিনাজপুর ১৫। পশ্চিম বর্ধমান ১৬। পুব মেদিনীপুর ১৭। ঝাড়গ্রাম ১৮। অলিপুদুয়ার ১৯। বীরভূম
বয়স হতে হবে ০১-০১-2020  অনুসারে ১৮- ৪০ বছরের মধ্যে ।
আবেদনের ফি হিসাবে ৮০ টাকা দিতে হবে ।
যে সমস্ত প্রার্থীরা আবেদন করবেন তাদের সরাসরি ইন্টারভিউ এ ডাকা হবে ।এসএমএস বা পোস্ট মাধ্যমে ডাকা হবে ।
বেতন দেওয়া হবে 7820 - 42500 টাকা পর্যন্ত ।
আবেদন চলবে 03-03-2020 থেকে 04-04-2020  পর্যন্ত ।
২-৩ মাসের মধ্যে ইন্টারভিউ এ ডাকা হবে বলে জানানো হয়েছে ।
এছাড়া আরো বিস্তারিত জানতে ও আবেদন করতে ভিসিট করুন www.hiplopc.i

  •  
************************************************************************
বঙ্গধারা প্রতিবেদন  :- গত কয়েকদিন আগে রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগের অন্যতম বোর্ড এসএসসি শিক্ষক নিয়োগের নতুন পদ্ধতি চালু করার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল, যদিও তার সচ্ছতার ইতিবাচক ও নেতিবাচক বহু মন্তব্য এসেছে।

   যার পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষামন্ত্রী আবারও মুখ খুললেন  ,
SSC(এসএসসি) তে দ্রুততার এবং স্বচ্ছতার সঙ্গে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যেই নতুন ব্যবস্থা নিয়ে আসা হয়েছে। ঠিক এমনটাই জানিয়েছে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। গতকাল পুরুলিয়ার সিধো-কানহো বীরসা বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এমন মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী ।
তিনি বলেন, যাঁদের শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকবে, তাঁরা অবশ্যই চাকরির পরীক্ষায় ভালো করতে পারবেন। তিনি জানান, বিতর্ক সরিয়ে শিক্ষার মানোন্নয়নই রাজ্য সরকারের মূল লক্ষ্য বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।
সাংবাদিকদের প্রশ্ন উত্তর পর্বে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান যে, এমন ব্যবস্থা করা যায়, যার মাধ্যমে নিয়োগ করা সম্ভব হবে। সেই সিস্টেম ‘ফুল প্রুফ’ হবে কি না ভবিষ্যৎই বলবে। নিয়োগ প্রক্রিয়া যাতে কোনওমতেই দীর্ঘায়িত না হয়, তা দেখতে হবে। বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন ও হাইকোর্টকে জিজ্ঞাসা করুন, যাঁরা প্রতিনিয়ত মামলা করেন, তাঁরা আমাদের কাছে এসে কথা বলে মেটান না কেন?

আপনারা জানেন নতুন শিক্ষক নিয়োগ নীতি ইতিমধ্যেই প্রকাশ করা হয়েছে। সেই নীতি নিয়ে বেশ কিছু শিক্ষক সংগঠন প্রশ্ন তুলতে  শুরু করেছে। যে প্রশ্নতি বেশি আসছে সেটি হল একাডেমিক স্কোর কেন তুলে দেওয়া হল ,সেই নিয়ে। এই প্রশ্ন যখন শিক্ষামন্ত্রীকে করা হয় তখন তিনি জানান যে, “যাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকবে, তিনি অবশ্যই চাকরির পরীক্ষায় ভালো করতে পারবেন

*************************************************************************
  •  পশ্চিমবঙ্গ মিউনিসিপালিটি সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে বহু শূন্যপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রত্যেক শূন্যপদের জন্য যোগ্যতাও আলাদা লাগবে। নূন্যতম মাধ্যমিক পাশ করে আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে।
 পদ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত নিচে দেওয়া হল
  1. সহায়তাকারী ইঞ্জিনিয়ার (১)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: অল ইন্ডিয়া কারিগরি শিক্ষার কাউন্সিলের (এআইসিটিই) অনুমোদিত কোনও অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক ডিগ্রি।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 36 বছর।
 বেতন স্কেল: Rs.15600 - 46000 টাকা

 2. সহায়ক প্লেনার (১)

 শিক্ষাগত যোগ্যতা: i) নগর পরিকল্পনা বা নগর পরিকল্পনা বা নগর পরিকল্পনা বা আবাসন পরিকল্পনা বা দেশ পরিকল্পনা বা পল্লী পরিকল্পনা বা অবকাঠামো পরিকল্পনা বা আঞ্চলিক পরিকল্পনা বা পরিবহন পরিকল্পনা বা পরিবেশ পরিকল্পনা বা এআইসিটিই দ্বারা স্বীকৃত একটি বিশ্ববিদ্যালয় বা 01 বছর মেয়াদী পরিবেশ পরিকল্পনা  কেন্দ্রীয় সরকার বা রাজ্য সরকার বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বা বিশ্ববিদ্যালয় বা স্বীকৃত গবেষণা প্রতিষ্ঠান বা সরকারী সেক্টর আন্ডারটাকিংস বা আধা-সরকারী বা সংবিধিবদ্ধ বা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থায় নগর বা আঞ্চলিক পরিকল্পনার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 36 বছর।
 বেতন স্কেল: 15600 - 46000 টাকা

 ৩. সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার (১)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: i) AICTE দ্বারা স্বীকৃত একটি প্রতিষ্ঠান থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের একটি ডিপ্লোমা।
 ii) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে উচ্চতর যোগ্যতা প্রাপ্ত প্রার্থীরাও আবেদন করতে পারবেন।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 36 বছর।
 বেতন স্কেল: 9000-40000

 ৪. জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট প্ল্যানার(১)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: i) আর্কিটেকচারে স্নাতক বা ভূগোল বা অর্থনীতি বা সমাজবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি,
 ii) স্নাতক পরিকল্পনা বা এআইসিটিই দ্বারা স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে পরিকল্পনায় স্নাতক।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 36 বছর।
 বেতন স্কেল:9000-40000 টাকা

 5. সার্ভেয়ার(১)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: উচ্চ মাধ্যমিক বা এআইসিটিই কর্তৃক স্বীকৃত একটি প্রতিষ্ঠান থেকে জরিপ বা সার্ভেতে ডিপ্লোমা বা সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা ইন এর সমতুল্য।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 39 বছর।
 বেতন স্কেল: Rs.7100 - Rs.37600

 6. নকশাকার(১)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: উচ্চ মাধ্যমিক বা এটিআইটিটিই স্বীকৃত একটি প্রতিষ্ঠান থেকে আর্কিটেকচারে ডিপ্লোমা বা সিভিল ড্রাফটসম্যানশিপের সমতুল্য।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 এ সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 39 বছর।
 বেতন স্কেল: Rs.7100 - Rs.37600

 7. কার্যকারী সহায়তা(২)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: মধ্যমিক বা কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন জ্ঞানের সাথে এর সমতুল্য এবং ইংরেজীতে 20 ডাব্লুএমপি কম্পিউটারে টাইপ করার ক্ষমতা।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 পর্যন্ত সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 40 বছর।
 বেতন স্কেল: Rs.5400 - Rs.25200

 8. নিম্ন বিভাজন ক্লিক(২)
 শিক্ষাগত যোগ্যতা: মাধ্যমিক বা কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে শংসাপত্র কোর্সের সমতুল্য।
 বয়সসীমা: 01/01/2020 পর্যন্ত সর্বনিম্ন 18 বছর এবং সর্বোচ্চ 40 বছর।
 বেতন স্কেল: Rs.5400 - Rs.25200
আবেদন ফি: প্রার্থীদের অবশ্যই ২২০ / - টাকা এসসি, এসটি এবং পিএইচ প্রার্থীদের জন্য আবেদন ফি দিতে হবে /  অনলাইন মোডের মাধ্যমে ফি প্রদান করা যেতে পারে।
আবেদনের শেষ তারিখ :-  07-04-2020
For more details please visit   https://www.mscwb.org


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য