পুনরায় টেট পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে আদালতে দ্বারস্থ হওয়ার বিরাট পরিকল্পনা শতাধিক চাকরি প্রার্থীর।

টেট ২০১৭  বাতিল করে পুনরায় টেট পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে আদালতে দ্বারস্থ হওয়ার বিরাট পরিকল্পনা শতাধিক চাকরি প্রার্থীর। 



গত ২০১৭  সালে প্রাথমিকে নতুন করে নিয়োগ করার জন্য প্রায় আড়াই লক্ষ চাকরি প্রার্থীর আবেদন গ্রহণ করা হয় , ইতিমধ্যে গত রবিবার তৃতীয় রাজ্য প্রাইমারি টেট পরীক্ষা সম্পর্ণ হয়। যদিও দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবেশেষে টেট পরীক্ষা সম্পর্ণ হয় তবুও সন্তুষ্ট না অধিকাংশ টেট প্রার্থী। তৃতীয়বারের মতো টেট পরীক্ষা সম্পর্ণ হলেও এখনো পর্যন্ত প্রাইমারি যেত পরীক্ষা ধরণ কি তা এখনো পর্যন্ত অজানা থেকে গেলো চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে এমনটাই বহু চাকরি প্রার্থীর মন্তব্য তারা এও জানান যে ,এনসিআরটি কোনো নিয়ম না মেনে রাজ্যে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা সম্পর্ণ হয়।  সাধারণত সাধারণ প্রশ্নের সঙ্গে প্রাইমারি ক্ষেত্রে পেডাগজি প্রশ্ন হওয়া দরকার কিন্তু তার কোনোটাই মেনে টেট পরীক্ষা সম্পর্ণ করা হয়নি। 



তারা এও জানান যে , গত ২ বারের তুলনায় এবারে প্রশ্ন পত্র অনেক জটিল ছিল। আপাত দৃষ্টিতে তা মনে না হলেও পরীক্ষার হলে সময়ের সাপেক্ষে তা লক্ষ করা যাই।  আরো জানান,এই সময়ের মধ্যে এই ধরণের প্রশ্নের উত্তর দেওয়া অনেকের মধ্যে সাধ্যের বাইরে ছিল। এছাড়াও না দিকে প্রশ্ন পত্র ফাঁসের অভিযোগ আসে কিন্তু তা এখনো পর্যন্ত লিখিত ভাবে অভিযোগ করা হয়নি। 



এদিকে চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে অনেকে টেট ২০১৭ নিয়ে নানা অভিযোগের ভিত্তিতে কোর্টে লিখিত অভিযোগের পরিকল্পনা করছে এমন সূত্রের মারফত জানা গিয়েছে।  আরো জানা গিয়েছে তারা টেট ২০১৭ বাতিলের দাবিতে বেশ কয়েকটি অভিযোগ নিয়ে কয়েক দিনের মধ্যে হাই কোর্টে দারস্ত হতে চলেছে। তাদের দাবি টেট  ২০১৭ এনসিটিই র কোনো রকম গাইড লাইন ফলো না করে প্রশ্ন পত্র তৈরী করা হয়েছে যা অবৈধ বলে তারা মনে করে।  এছাড়াও তাদের দাবি অনেকের প্রশ্ন পত্রের সিরিজ কোড ও ওএমআর এর কোড দুটোই আলাদা আলাদা তাই আরো কয়েকটি অভিযোগের ভিত্তিতে শীগ্রই টেট ২০১৭ কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে দ্বারস্থ হতে চলেছে শতাধিক প্রার্থী। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য