মাটি খুঁড়তেই ভুঁড়ি ভুঁড়ি সোনা ও রুপা, দেখে কপালে চোখ জমি ব্যবসায়ীর

 খবরটা শুনতে অবস্থা মনে হলেও এটাই বাস্তব । মাটি খুরতেই বেড়িয়ে এলো ভুঁড়ি ভুঁড়ি সোনা । এই ঘটনাটি ঘটলো তেলেঙ্গানার এক জমি ব্যবসায়ীর সঙ্গে । জমিতে খনন করার সময় বেড়িয়ে এলো সোনা ও রুপার গহনা । গহনা দেখে হতভম্ব জমি ব্যবসায়ী সঙ্গে সঙ্গে জমে গেলো স্থানীয় বাসিন্দাদের ভির ।      



 ঘটনাটি ঘটে তেলেঙ্গানা রাজ্যের জানগা জেলার পেমভারতী গ্রামে। সেখানকার জমি ব্যবসায়ী নরসিমহার জাতীয় সড়কের পাশে নিজের ১১ একর জমিতে কিছু কাজ করছিলেন। সেখানে জমি খননের সময় তাঁর জমির নীচে একটি তামার কলসি দেখতে পান ওই জমি ব্যবসায়ী।


১ম কলসি খুলতে দ্বিধা করলেও, এরপরে কৌতুহল বশত কলসির ঢাকনা খুলতেই তাঁর চোখ কপালে ওঠে। ভিতরে দেখে কলসির মধ্যে রয়েছে ভুরি ভুরি সোনা রূপোর গহনা। তারপর দেখে সেগুলো কোন ঠাকুরের গহনা বলেই মনে হচ্ছে। কিন্তু আসল কথা হল এই গহনা ভর্তি কলসি সেখানে কে রেখেছে, তা এখনও অবধি ঠাহর করা যায়নি।


সেখানে প্রায় ১.৭২৭ কিলো রূপোর গয়না এবং প্রায় ১৮৭.৪৫ গ্রাম সোনার গহনা ছিল ওই কলসির মধ্যে। গলার হার, কানের দুল, নাকছাবি, পায়ের তোড়া বিভিন্ন রকমের সোনা রূপোর গহনা ছিল সেই কলসিতে। গুপ্তধন পাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই কাতারে কাতারে লোক ভিড় করে তাঁর বাড়িতে।


ব্যবসায়ীর নিজের জমির নীচে এই কলসি ভর্তি গহনা পেলেও, তা নিজের কাছে রাখতে পারেননি ওই জমি ব্যবসায়ী। কলসি ভর্তি সমস্ত গহনাই রয়েছে জেলার কালেক্টরের অফিসে। পরবর্তীতে সেগুলো নানারকম পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে।

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য